তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য আলিবাবার চেয়ারম্যান জ্যাক মা'র ১৪ টি পরামর্শ

সর্বশেষ হালনাগাদঃ ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

 

জ্যাক মা আলিবাবা (Alibaba) গ্রুপ এর প্রতিষ্ঠাতা এবং নির্বাহী চেয়ারম্যান। ১৯৬৪ সালের ১৫ই অক্টোবর তার জন্ম চীনে তিনি একজন সুপরিচিত ব্যবসায়ী ফোর্বস-র হিসাবে বর্তমানে(১০ ফেব্রুয়ারি,২০১৮) তিনি চীনের ২য় এবং বিশ্বের ২০ তম ধনী ব্যক্তি । তার সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৩৮.৬ বিলিয়ন ডলার।  

 

জ্যাক মা তার জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে উদ্যোক্তাদের উদ্দ্যেশ্যে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন যা নিচে আলোচনা করা হল-

১। ভুলের জন্য অনুশোচনা কর

ভুল থেকে শিক্ষা নিন ও অনুশোচনা করুন। আপনার সিদ্ধান্ত আপনার দক্ষতার চেয়েও বেশী গুরুত্বপূর্ণ

২। প্রত্যেকের চিন্তাধারা এক নয়, একটি সাধারণ লক্ষ্যের মাধ্যমে আপনার দলকে ঐক্যবদ্ধ করুন

কখনোই এটা ভাববেন না যে, সবার চিন্তাধারা একত্রিত করা সম্ভব। এর চেয়ে কোম্পানির আওতায়  সাধারন একটি লক্ষ্য দিয়ে তাদের একত্রিত করা সহজ।   

৩। একজন নেতার কি আছে যা একজন কর্মীর নেই?

আপনার কর্মীর আপনার থেকে উচ্চতর প্রযুক্তি জ্ঞান থাকতে পারে; যদি উচ্চতর প্রযুক্তিগত দক্ষতা না থেকে তার মানে আপনি ভুল ব্যক্তিকে নিয়োগ দিয়েছেন।

তবে একজন  নেতার যা থাকতে হবে-

  • দূরদর্শী চিন্তা করার ক্ষমতা, উচ্চাশা
  • চাপ নেয়ার ক্ষমতা ও ধৈর্য

 

৪। রাজনীতিতে জড়াবেন না

আপনাকে সবসময় বুঝতে হবে যে টাকা এবং রাজনৈতিক ক্ষমতা কখনো একসাথে অর্জন করা যাবে না।

৫। তরুণ প্রজন্মকে চারটি টি প্রশ্ন বিবেচনা করতে হবে

  • ব্যর্থতা কি? হতাশ হয়ে লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে যাওয়াই সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।
  • স্থিতিস্থাপকতা কি? যখন আপনি কঠিন বাস্তবতা আর হতাশার মধ্যে পড়বেন তখনই এটা বুঝতে পারবেন।
  • আপনার দায়িত্ব কি? অন্যদের চেয়ে কঠোর পরিশ্রমী আর অধ্যাবসায়ী হওয়া।
  • বোকারা শুধু মুখে মুখেই কথা বলে? স্মার্ট লোকেরা মস্তিস্ক ব্যবহার করে  আর জ্ঞ্যানীরা হৃদয় ব্যবহার করে।

৬। আমরা বাঁচার জন্য এবং অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য জন্মগ্রহণ করেছি

আপনি যদি আপনার পুরো জীবনটাই কাজ করে শেষ করে দেন, তাহলে দিন শেষে আপনি অবশ্যই এ নিয়ে অনুশোচনা করবেন।

৭। প্রতিদ্বন্দ্বিতা এবং প্রতিযোগিতা

একে অপরের সাথে আক্রমনাত্মকভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা বোকামি ছাড়া কিছুই নয় সত্যিকারের ব্যবসায়ী বা উদ্যোক্তার কোন শত্রু নেই

৮। অভিযোগ এবং ন্যাকামির অভ্যাস করবেন না

অভিযোগ করা মানেই বড় কিছু নয়। এ সকল অভ্যাস আপনাকে শুধুই হতাশায় ফেলে দিবে।

৯। উদ্যোক্তাদের জন্য পরামর্শ

যে সকল সম্ভাবনা অন্যরা দেখতে পায় না সেটাই হল বাস্তব সুযোগ। কর্মীদের উৎসাহের সাথে কাজের সুযোগ দিন। যেখানে নিয়ম-নীতি বদলানোর প্রয়োজন হয় বদলে ফেলুন ক্রেতাদের সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিন, তারপর কর্মীদের আর সবার শেষে শেয়ারহোল্ডারদের।

১০। ব্যবসায়ের জন্য পরামর্শ

আপনার কোম্পানী শুরু করার জন্য পরিপূরক দক্ষতা আছে এমন কেউ খুঁজে বের করুনসঠিক মানুষ খুঁজুন, সেরা মানুষ নয়।

১১ নিজস্ব কোম্পানী শুরু করার জন্য

কোম্পানির শুরুতে আপনার আয় সীমিত হবে, সঠিক নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে আপনাকে এর উন্নয়ন করতে হবে। 

১২ সুযোগ অনুসন্ধানী হন

যেই ধারণার উপর অন্য কেউ কাজ করেনি তা আপনি করুন। সুযোগকে কাজে লাগান।