ব্যবসার আইডিয়া যাচাই এবং নতুন পণ্য বা সেবা নিয়ে আসা

সর্বশেষ হালনাগাদঃ ২৮ জানুয়ারি ২০১৮

 

আপনার ব্যবসার আইডিয়াটি দৃশ্যমান পণ্য বা সেবায় পরিণত করা ব্যবসার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। প্রাথমিক পর্যায়ে বাজার মূল্যায়ন এবং বাজার গবেষণা আপনার পণ্য বা সেবার জন্য বাজার চাহিদা আছে কিনা তা যাচাই করতে সাহায্য করবে। আপনি লেনদেন শুরু করলে, নতুন পণ্য ব সেবা, ব্যবসা প্রবৃদ্ধি এবং মুনাফা অর্জনের জন্য বিনিয়োগেরও প্রয়োজন । কিন্তু উন্নয়ন প্রক্রিয়াটি ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে এবং এতে যথেষ্ট পরিকল্পনা ও সংগঠনের প্রয়োজন হয়

এই নির্দেশিকা আপনার ব্যবসার আইডিয়া যাচাই করতে সাহায্য করবে এবং একটি প্রক্রিয়া স্থাপন করে ব্যবসার বিভিন্ন পর্যায় মনিটর ও সফলতার পরিমাপ নির্ণয় করতে সহায়তা করবে । আপনার ব্যবসার আইডিয়া উন্নয়নে কিভাবে অর্থ ব্যয় করবেন এবং অন্য লোকেরা যদি জড়িত থাকে তবে কীভাবে এটি রক্ষা করা যায় তা সম্পর্কে পরামর্শ দিবে ।   

এখানে আপনি নতুন পণ্য বা সেবার উন্নয়ন প্রক্রিয়ার তথ্যও পাবেন, যা আপনাকে বিনিয়োগ এবং বাজেট নির্ধারণ বিষয়ক সিদ্ধান্তগুলো নিতে সাহায্য করবে । আপনি কীভাবে একটি পণ্য উন্নয়নের জন্য কাঠামো তৈরি করতে পারবেন এবং একটি প্রকল্প পরিচালনা করতে পারবেন তা সম্পর্কেও নির্দেশনা দিবে ।  

১. আপনার ব্যবসার আইডিয়া খুঁজে বের করা এবং নতুন পণ্য বা সেবা উন্নয়ন

একটি নতুন আইডিয়া একটি ব্যবসা শুরু করার ভিত্তি। অনেক উদ্যোক্তা বাজারে নির্দিষ্ট  ফাঁকা জায়গা পূরন করার জন্য নতুন পণ্য বা সেবা প্রদান শুরু করে । আবার অনেকে একটি বিদ্যমান পণ্য উন্নয়নে দৃষ্টি দেয়

একটি নতুন আইডিয়া নিয়ে আসা

আপনি যদি একটি ব্যবসা শুরু করতে চান কিন্তু কাজ করার জন্য ভাল আইডিয়া না থাকে, তাহলে  এটি সনাক্ত করার অনেক উপায় আছে। নিম্নলিখিত প্রশ্নগুলো আপনাকে সাহায্য করতে পারেঃ

  • আপনার কোন বিশেষ দক্ষতা আছে যা একটি নতুন ব্যবসায়ের ভিত্তি গঠন করতে পারে?
  • আপনি বতমানে যে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছেন সেখানে কোন শূন্য জায়গা সম্পর্কে কি আপনি অবহিত আছেন?  
  • আপনার কি কোন শখ আছে যা ব্যবসায় পরিণত হতে পারে?
  • এমনকি কোনও সময় হয়েছে যখন আপনার কোন নির্দিষ্ট সেবা বা পণ্য প্রয়োজন যা অন্য কেউ সরবরাহ করে না? আপনার এটি প্রয়োজন হলে, অন্য মানুষেরও প্রয়োজন হতে পারে ।

আপনার আইডিয়া বিকাশ

যদি আপনি ব্যবসার আইডিয়া পেয়ে থাকেন, এটা চূড়ান্ত করতে সময় নিন । আইডিয়াটি একটি সফল ব্যবসায়ের ভিত্তি হতে পারে কিনা তা বিবেচনা করুন।

একটি ব্যবসার আইডিয়া উন্নয়নের বিভিন্ন পদ্ধতি রয়েছে । আপনি যা করতে পারেনঃ  

  • আপনার আইডিয়াটি বাজারের ফাঁকা জায়গাটি পূরণ করবে কিনা তা জানতে বাজার গবেষণা করুন
  • বন্ধু, সহকর্মী বা কর্মীদের সাথে আপনার আইডিয়াটি আলোচনা করুন-  তারা এই আইডিয়াটি নিয়ে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে পরামর্শ দিতে পারে এবং অন্য কেউ একই জিনিস করছে কিনা তার সম্পর্কে তথ্য দিতে পারে
  • আপনার আইডিয়াটি নতুন কোনও প্রযুক্তির দ্বারা সুবিধা নিতে পারবে কিনা তা চিন্তা করুন, যেমন অনলাইন (online)  লেনদেন দ্বারা  
  • বর্তমান সময়ের ট্রেন্ড আপনার পণ্যের চাহিদার উপর প্রভাব ফেলবে কিনা তা বিবেচনা করুন,  যেমন অর্গানিক খাদ্যের ক্রমবর্ধমান চাহিদা বৃদ্ধি বা বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি নিয়ে মানুষের চিন্তা

নতুন পণ্য এবং সেবা উন্নয়ন

একটি নতুন পণ্য বা সেবা উন্নয়ন ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারেব্যবসার ঝুঁকি হ্রাস এবং ব্যবসায় বিনিয়োগ এবং সম্পদ বুদ্ধিমত্তার সাথে বরাদ্দ করার জন্য গ্রাহকদের চাহিদা, বাজারের অবস্থাসহ অনেকগুলি বিষয় বিবেচনা করতে হবে, এবং অবশ্যই আপনার পরিকল্পনাগুলো স্পষ্টভাবে নির্ধারণ করতে হবে

. আপনার আইডিয়াটির জন্য কোনো বাজার আছে কি?

আপনার পণ্য বা সেবার জন্য কোন বাজার বা চাহিদা আছে কিনা তা যাচাই করতে আপনি কিছু নির্দিষ্ট মাপদণ্ড ব্যবহার করতে পারেনঃ

  • এটি কি সন্তুষ্টি বা বাজার চাহিদা পূরণ করে?
  • আপনি কি সম্ভাব্য গ্রাহকদের চিহ্নিত করতে পারেন?
  • এটি কিন নতুন ট্রেন্ড তৈরি করবে বা বর্তমান ট্রেন্ডকে ভালভাবে কাজে লাগাতে পারবে?
  • আপনার প্রস্তাবিত সেবা/পণ্য কি প্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে আলাদা, স্বতন্ত্র বা উচ্চতর?
  • কোন ধরণের প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হবে - প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ, স্থানীয়, জাতীয় বা বৈশ্বিক?
  • জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য পণ্যটি কি নিরাপদ এবং এটি কি প্রাসঙ্গিক প্রবিধান এবং আইন মেনে চলছে? এগিয়ে যাওয়ার আগে আইনি পরামর্শ নিন ।
  • বাজার কি আপনার পণ্য বা সেবা বাস্তবসম্মত দামে চাইবে?

বাজার গবেষণা আপনাকে এই প্রশ্নগুলোর উত্তর পেতে সাহায্য করবে এবং আপনার সাফল্যের সম্ভাবনা বৃদ্ধি করবে আপনার টাকা বিনিয়োগ করার আগে গবেষণার জন্য সময় বিনিয়োগ করুন । মনে রাখবেন, যদিও আপনার নতুন পণ্য বা সেবার ব্যবহারকারী(end users) আপনার জন্য সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ, তথাপি আপনাকে অন্যান্য পক্ষ যেমন, খুচরো ব্যবসায়ী বা ডিস্ট্রিবিউটর ইত্যাদি পক্ষকেও গুরুত্ব সহকারে নিতে হবে।  

আপনার বাজার গবেষণায় নিখুঁত হতে পারাটা গুরুত্বপূর্ণ, নতুবা এই পর্যায়ে করা ভুলগুলো পরবর্তীতে ব্যয়বহুল হবে মনে রাখবেন, আপনার কাছে যত বেশি তথ্য থাকবে আপনি আপনার সম্ভাব্য গ্রাহক, বাজার এবং আপনার পণ্যটির জন্য কীভাবে বাজারে অবস্থান তৈরি করবেন তা বুঝতে সক্ষম হবেন

আপনার প্রতিযোগিতা

শুধুমাত্র আপনার গ্রাহকদের চাহিদা পূরণই নয়, আপনাকে আপনার প্রতিযোগীদের দেয়া বিকল্পগুলোর চেয়েও ভালো কিছু দিতে হবে।
আপনার নতুন পণ্য বা সেবার একটি স্বতন্ত্র দিক(
Unique Selling Point) থাকা উচিত যেটি আপনাকে অন্যদের থেকে আলাদা করবেবাজারে প্রবেশ করার আগে আপনাকে বাজারের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করতে হবেবিষয়গুলো হতে পারেঃ

  • বর্তমানে গ্রাহকের চাহিদাগুলো কীভাবে পূরণ হয়?
  • কেন গ্রাহকরা আপনার প্রতিযোগীদের নয় বরং আপনার পণ্য বা সেবাটি পছন্দ করবে এবং ভবিষ্যতে বেছে নেবে?
  • এই বাজারে আপনার পণ্য বা সেবা চালু করার জন্য আপনাকে কী ঝুঁকি নিতে হবে?

 

 

৩. আপনার আইডিয়ার উন্নয়ন পরিকল্পনা

আপনার আইডিয়া উন্নয়নের পর্যায় বা চেকপয়েন্ট (checkpoint) চিহ্নিত করার চেষ্টা করুন। প্রতিটি চেকপয়েন্ট (checkpoint) আপনাকে আপনার পণ্য বা সেবাটির অগ্রগতি মূল্যায়ন করতে এবং কোন পরিবর্তন করতে হবে কিনা সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে আইডিয়াটির অগ্রগতি অর্জনের জন্য এটি আপনাকে প্রতিটি পর্যায়ের সমাপ্তি বিবেচনা করতে সহায়তা করবেযদি কোন আইডিয়ার সফলতার সম্ভাবনা না থাকে তাহলে সময় বা অর্থ বিনিয়োগ না করে তা বাদ দেওয়া উচিত।

আপনার চেকপয়েন্টগুলো (checkpoints) হতে পারেঃ  

নকশা - আপনার আইডিয়া একটি পণ্য বা সেবা রুপে সত্যিই বিক্রি হতে পারে

প্রোটোটাইপিং (prototyping)- আপনার পণ্য বা সেবার একটি ব্যবহারযোগ্য উদাহরণ তৈরি করুন, যা পরীক্ষা করা যেতে পারে

পেটেন্ট - যদি আপনি পণ্য বা প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে থাকেন তবে তা পেটেন্টের (patent) জন্য আবেদন করুন।

অর্থায়ন - আপনার ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার যে অর্থের প্রয়োজন হবে তা সংগ্রহ করুন।

কার্যকলাপ - আপনার ব্যবসার কাঠামো স্থাপন করুন, যেমন একটি উপযুক্ত অবস্থান,  কর্মী নিয়োগ ইত্যাদি

বিপণন - আপনি আপনার পণ্য বা সেবা কিভাবে বিক্রি করবেন তা নির্ধারণ করুন।

অগ্রগতি বিচার করুন

যদি চেকপয়েন্টের কোন একটি লক্ষ্যও পূরণ করা না হয়, তাহলে ব্যপারটি বিশ্লেষণ করতে হবে। আপনার উদ্দেশ্যগুলি অযৌক্তিক কিনা তা নিজেকেই জিজ্ঞাসা করুন। যদি তাই হয়, তাহলে আপনাকে আপনার উদ্দেশ্যগুলো সংশোধন করতে হবে।
এখানে কিছু বিষয় আছে, যার জন্য আপনাকে আপনার আইডিয়াটি পুনর্বিবেচনা করতে হবে। এইগুলো হতে পারেঃ 

  • পণ্য বা সেবাটির উন্নয়ন বাণিজ্যিকভাবে টেকসই নয় এবং যুক্তিসঙ্গত আয় নিশ্চিত না করে
  • এমন একটি পণ্য উন্নয়ন করা যা প্রযুক্তিগতভাবে টেকসই নয়, যেমন- এটি সহজে তৈরি করা যায় না বা কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয়তাগুলো পূরণ করে না
  • অন্য কেউ বা কোন বড় বা সুপ্রতিষ্ঠিত প্রতিদ্বন্দ্বী যদি একই পণ্য বা সেবা বাজারে নিয়ে আসে।

 

৪. অর্থায়ন এবং খরচ নিয়ন্ত্রণ

অনেক উদ্যোক্তাদের জন্য পর্যাপ্ত তহবিল সংগ্রহ করা একটি বড় বাধাপণ্য বা সেবা উন্নয়নের সময় আপনার প্রয়োজনীয় অর্থের পরিমাণ পরিবর্তিত হতে পারে পণ্য তৈরিতে আপনার প্রত্যাশার তুলনায় সময় বেশি লাগতে পারে বা খরচ বাড়তে পারে
একটি নতুন ব্যবসার জন্য অর্থসংস্থানের সবচেয়ে সাধারণ উপায় হল ব্যাংক ঋণ এছাড়া অন্যান্য বিকল্প উপায়ও রয়েছে, যেমন :

  • শেয়ার বা অন্য কোনও বিনিয়োগে জমা রাখা অর্থ নগদায়ন করা
  • পরিবার বা বন্ধুদের কাছ থেকে টাকা ধার করা
  • আপনার সম্পত্তি বিক্রি
  • ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নেয়া
  • সরকারি অনুদান
  • ব্যক্তিগত বা প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে বিনিয়োগ

আপনার আর্থিক পূর্বাভাস তৈরি করার সময় জটিল এবং অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির  বিষয় বিবেচনায় রাখবেনবিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং আপনার খরচ নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনার উচিতঃ

  • আপনার কৌশলগত ব্যবসা পরিকল্পনা মধ্যে পণ্য এবং সেবার ভবিষ্যত বিনিয়োগ অন্তর্ভুক্ত করা।
  • কোথায় বিনিয়োগের করবেন তা সঠিকভাবে পরিকল্পনা করা।
  • প্রতিটি প্রকল্পের উন্নয়ন ব্যয় নিরূপণ করা।
  • আপনার খরচ নিয়ন্ত্রন করা।  

বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে, নতুন পণ্য বা সেবা থেকে আপনার ব্যবসায় কতটা লাভবান হবে তা বিবেচনা করুন এবং কতটা ঝুঁকি মোকাবেলা করতে হবে তা নিরূপণ করুন।  

নতুন পণ্য উন্নয়নের ধাপ

ঝুঁকি হ্রাস করার জন্য একটি প্রকল্পে ধাপে ধাপে বিনিয়োগ করা হয়। উন্নয়নের প্রতিটি পর্যায়ের শেষের দিকে সফলতা নিয়ে পর্যালোচনা করা হয় এক্ষেত্রে আপনি সফল হবেন এমন পণ্য বা সেবাগুলো চিহ্নিত করতে পারেন। যদি পণ্য বা সেবাটি উল্লেখিত মানদণ্ড পূরণ করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে প্রকল্পটি বাতিল করাই উত্তম। আর যদি মানদণ্ডের সাথে মিলে যায়, তাহলে আপনি পরবর্তী উন্নয়নের ধাপে পৌঁছানোর জন্য পরবর্তী সম্পদ/বিনিয়োগ বরাদ্দ দিতে পারেন।

খরচ নিয়ন্ত্রণ

যখন আপনি নতুন পণ্য ও সেবার উন্নয়ন করেন তখন খরচ নিয়ন্ত্রণের উপর লক্ষ্য  রাখতে হবে। আপনার উচিতঃ

  • আগেই উন্নয়ন খরচ অনুমান করা।  
  • উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় ব্যয় নিরীক্ষণ করা
  • ধাপে ধাপে বিনিয়োগ করা

মনে রাখবেন, আপনার বাজেটে যেন কর্মীদের নিয়োগ, উপকরণ, প্রযুক্তি, পণ্য নকশা, বাজার গবেষণা, প্রোটোটাইপিং (prototyping) এবং অন্যান্য খরচগুলো অন্তর্ভুক্ত থাকে।

৫. একটি প্রকল্প উন্নয়ন দল তৈরি করা

প্রতিটি সম্ভাব্য নতুন পণ্য বা সেবার জন্য নিবেদিত দল প্রয়োজন। দল তৈরিতে আপনাকে বিভিন্ন দক্ষ ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, একজন সৃজনশীল ব্যক্তি, একজন কারিগরি বিশেষজ্ঞ, একজন বিপণন বিশেষজ্ঞ, যিনি বাজার গবেষণার দায়িত্ব নিতে পারেন, যিনি গ্রাহকের চাহিদার কথা বোঝেন এবং এমন কেউ যে সরবরাহ পদ্ধতির সমস্যার সমাধান দিতে পারে।  
দলের সদস্যদের আপনার ব্যবসায়ের উদ্দেশ্য বুঝতে এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে।
দলগতভাবে কাজ করার বিভিন্ন পদ্ধতি আছে এবং আপনার জন্য কোনটি সঠিক তা আপনার ব্যবসার প্রয়োজনের উপর নির্ভর করবে। উদাহরণস্বরূপ
, দলের সদস্যরা :

  • একক বিভাগে- একটি প্রকল্পে বিশেষভাবে কাজ করতে পারে এবং একজন প্রকল্প ব্যবস্থাপককে রিপোর্ট করতে পারে
  • বিভিন্ন আলাদা বিভাগে থেকেই একই প্রকল্পে কাজ করতে পারে এবং নিজ নিজ বিভাগীয় প্রধানকে রিপোর্ট করতে পারে যারা আবার প্রকল্প ব্যবস্থাপককে রিপোর্ট করে।
  • একইসঙ্গে বিভিন্ন প্রকল্পে একজন বিভাগীয় প্রধান এবং প্রকল্প ব্যবস্থাপক  উভয়ের সাথে কাজ করতে পারে।

দলের নেতৃত্ব, সহযোগিতা এবং দলকে অনুপ্রাণিত করার জন্য একটি প্রকল্প ব্যবস্থাপনার জন্য কোন একজন দক্ষ ব্যক্তিকে প্রয়োজন হয়।

 

৬. একটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালনা

নতুন পণ্য বা সেবার সফল উন্নয়নের জন্য প্রকল্প পরিচালক অপরিহার্য। প্রকল্পের ব্যবস্থাপকের দায়িত্বঃ

  • খরচ নিয়ন্ত্রণ এবং সম্পদ বরাদ্দকরণ
  • পণ্য বা সেবার নির্দিষ্টকরণ
  • পণ্য উন্নয়নের জন্য দল সমন্বয়
  • উন্নয়ন প্রক্রিয়ার সময়সীমা নির্ধারণ
  • সমস্যা সমাধান

উন্নয়ন প্রক্রিয়ার সময়কাল নির্ধারণ

মূল কার্যসম্পাদন এবং পণ্য উন্নয়ন প্রক্রিয়ার জন্য আপনার প্রকল্প ম্যানেজারকে একটি সঠিক রাস্তা তৈরি করতে হবে। অগ্রগতির পরিমাপ এবং নিরীক্ষণ করার জন্য উদ্দেশ্যটি স্মার্ট (SMART; specific, measurable, agreed, realistic and time-bound) হতে হবে।  যাইহোক, আপনার পরিকল্পনাটি নমনীয় হতে হবে যাতে আপনি যে কোন আকস্মিক ঘটনার মোকাবেলা করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, আপনাকে প্রকল্পের বৈশিষ্ট্যের পরিবর্তন বা প্রত্যাশিত সমাপ্তির তারিখের পরিবর্তন

 

৭। পণ্য উন্নয়ন প্রক্রিয়া

নতুন পণ্য বা সেবা বিকশিত করার প্রক্রিয়াগুলো কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে ভাগ করা যায়ঃ

  • আইডিয়া খুঁজে বের করা - উদ্ভাবনী নতুন আইডিয়া নিয়ে আসা
  • আইডিয়া বাছাই করা – এমন কোন আইডিয়া গ্রহণযোগ্য নয় যা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবেনা
  • আইডিয়ার সংজ্ঞায়ন - প্রযুক্তিগত সম্ভাব্যতা এবং বাজারের সম্ভাবনা হিসাবে আনতে হবেযদি আপনি একটি নতুন পণ্যের পরিকল্পনা করেন, তাহলে  কৌশলগত বিশ্লেষণে আপনাকে নকশা প্রক্রিয়া বিবেচনা করতে হবে
  • আইডিয়া উন্নয়ন - একটি প্রোটোটাইপ পণ্য বা সেবা তৈরি
  • পরীক্ষামূলক বিপণন এবং আইডিয়া চূড়ান্তকরণ - গ্রাহক, প্রস্তুতকারক এবং সহায়ক প্রতিষ্ঠানের প্রতিক্রিয়া অনুযায়ী পণ্য বা সেবা সংশোধন করতে হবে 
  • পণ্য বিক্রি আরম্ভ- আপনার পণ্য বিক্রির জন্য তারিখ নির্ধারণ করার আগে, আপনাকে প্রথমে এটি নির্ধারণ করতে হবে যে আপনি কিভাবে আপনার পণ্য বা সেবা বিক্রি এবং প্রচার করবেনপ্রথমবারের জন্য সঠিক সময় নির্ধারণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু মনে রাখবেন যে বাজারে পণ্য ছাড়তে দেরী হলে আপনার প্রতিযোগীরা আপনার বাজারকে নষ্ট করে দিতে পারে।

পরিকল্পিত পণ্য উন্নয়ন প্রক্রিয়ার উপস্থিতি আপনাকে সময় এবং খরচ নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করবে।
 

পণ্য এবং সেবার জীবনচক্র

সকল পণ্য এবং সেবার একটি জীবনচক্র আছে, প্রাথমিক আইডিয়া থেকে শুরু করে শেষ পর্যন্ত সবকিছুই পণ্য জীবনচক্রের অন্তর্ভুক্ত। কোনও পণ্য বা সেবার জীবনচক্রে ৫ টি স্তরে বিভক্ত। সেগুলো হলঃ 

  • উন্নয়ন
  • সূচনা
  • প্রবৃদ্ধি
  • পরিপক্বতা
  • পতন

পণ্য বা সেবার জীবনচক্র চিহ্নিত করার মধ্যে আপনার মুনাফা নিহিত।

 

৮. আপনার প্রস্তাবিত সেবা বা পণ্যের মূল্য নির্ধারণ  

নতুন পণ্য বা সেবার জন্য মূল্য নির্ধারণ কৌশল স্থাপন করা উন্নয়ন প্রক্রিয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আপনাকে একটি আইডিয়া এগিয়ে নেওয়ার আগে বিবেচনা করতে হবে যে প্রকল্পটিতে আপনি কত বিনিয়োগ করতে পারবেন। আপনাকে নিম্নলিখিত বিষয়গুলি বিবেচনায় নিতে হবেঃ  

  • সুবিধাসমূহ বা মান- আপনাকে বিবেচনা করতে হবে যে আপনার প্রতিযোগীরা গ্রাহকদের কী কী সুবিধার প্রস্তাব দিচ্ছে?  গ্রাহকেরা কেন আপনার প্রস্তাবিত দামে পণ্য ক্রয় করবে?
  • আপনি বাজারে নতুন কিনা- আপনার পণ্য বা সেবাটি কি উদ্ভাবনী নাকি আপনি বাজার প্রবণতা অনুসরণ করছেন?
  • যে বিক্রয়ের পথগুলো আপনি ব্যবহার করবেন তা আপনার প্রচার ব্যয় এবং বিতরণ খরচকে প্রভাবিত করবে
  • কীভাবে আপনি আপনার পণ্য বা সেবাকে দ্রুত প্রতিষ্ঠা করতে চান?
  • আপনার পণ্য বা সেবার প্রত্যাশিত জীবনচক্র
  • আপনার খরচ তুলে আনতে পণ্যের মূল্য কতটা ধার্য করতে হবে?

মূল্য নির্ধারণের কৌশল বিক্রয় এবং চাহিদা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।   

 

৯. অন্যদের সাথে ব্যবসার আইডিয়া নিয়ে পরামর্শ

কিছু পর্যায়ে আপনি সম্ভবত তৃতীয় পক্ষের সাথে আপনার আইডিয়া নিয়ে আলোচনা করতে চান। কিন্তু আপনি জনসাধারণের সামনে আইডিয়াটি আলোচনা করলে তা আর গোপন থাকবে না বা গোপনীয় লেনদেন হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না। তাই আপনার বুদ্ধিবৃত্তিক (Intellectual) সম্পত্তি রক্ষা করার জন্য আপনাকে পদক্ষেপ নিতে হবে। তৃতীয় পক্ষের সাথে কথা বলার আগে গোপনীয়তা (non-disclosure) চুক্তি স্বাক্ষর করাতে হবে, যাতে অন্যদের সাথে আপনার আইডিয়ার বিবরণ নিয়ে আলোচনা না করে।

মেধা সম্পত্তি(Intellectual property)  

প্রত্যেক ব্যবসার মেধা সম্পত্তি থাকেআপনার ব্যবসার মেধা সম্পত্তিই আপনাকে আপনার প্রতিযোগীদের থেকে পৃথক করে। উদাহরণস্বরূপ, আপনার ব্যবসার নাম, লোগো, উদ্ভাবন, পণ্য ডিজাইন বা অন্য সৃজনশীল কাজ হতে পারে।
আপনার বুদ্ধিমত্তা একটি মূল্যবান সম্পদ, এবং আইনতভাবে এটি সুরক্ষার মাধ্যমে আপনার ব্যবসায়ের ভবিষ্যতকে সুরক্ষিত করতে হবে।

১০. বাজার পরীক্ষা

ব্যবসার ডিজাইন প্রক্রিয়ার জন্য পণ্য পরীক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। আপনার পণ্য বা সেবা উন্নয়ন করার জন্য সঠিক পথটি নিশ্চিত করতে বাজার পরীক্ষা করুন আপনি এটি যেভাবে করতে পারেনঃ

  • আপনার সম্ভাব্য গ্রাহকদের জিজ্ঞাসা করুন তারা আপনার পণ্য বা সেবা থেকে কী চায়।
  • প্রশ্নাবলী - যতটা সম্ভব প্রশ্ন এবং উত্তরের নমুনা পেতে চেষ্টা করুন
  • প্রোটোটাইপ (prototype)- গ্রাহকদের কাছে আপনার পণ্যের প্রাথমিক সংস্করণ দেখান। যদি আপনি গ্রাহকের ফিডব্যাকের ভিত্তিতে আপনার আইডিয়াকে সংশোধন করেন, তাহলে এটি আপনাকে বাজার উপযোগী পণ্য তৈরি করতে সাহায্য করবে

ডিজাইনটি পরিবর্তনের জন্য ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে কিছু প্রতিক্রিয়া এবং পরামর্শ জানতে হবে। নিরুৎসাহিত হবেন না, কারন সফল উদ্যোক্তারা এটি ব্যর্থতা হিসেবে দেখে না, শিক্ষা হিসেবে গ্রহন করে।
বড় বা সম্মানজনক সম্ভাব্য গ্রাহক বা ব্যবহারকারীর কাছে আপনার পণ্যের গুনগত মান যাচাই করার জন্য পণ্য সরবরাহ করুন। পণ্যের একটি ইতিবাচক প্রশংসাপত্র দিয়ে সহজেই অন্য গ্রাহকদের বিশ্বাস অর্জন করা যাবে।

আপনার কাছে যদি চূড়ান্ত পণ্য থাকে তাহলে আপনি একটি ব্র্যান্ড (Brand) নির্মাণ করতে পারবেনএকটি ব্র্যান্ড গ্রাহকের কাছে দৃশ্যমান সবকিছু, যেমন পণ্য নাম, প্যাকেজ (packaging) এবং বিতরণ।
আপনাকে আপনার মূল্য নির্ধারণ নীতি বিবেচনা করতে হবে। আপনাকে বাস্তবসম্মতভাবে সব উপকরণ
,যন্ত্রপাতি, প্রক্রিয়া এবং প্রশাসনিক সময় খরচ করতে হবে। আপনাকে বিভিন্ন সরবরাহকারীর বিপণন ও বন্টন প্রক্রিয়া এবং খরচ যাচাই করতে হবে। তারপর আপনার প্রতিযোগীরা গ্রাহকদের কাছে যে মূল্যে পণ্য বিক্রি করে পরীক্ষা করুন। আপনাকে আপনার পণ্য বা সেবার মূল্য এমনভাবে নির্ধারণ করতে হবে যাতে এটি গ্রাহকদের কাছে আকর্ষণীয় হয় এবং আপনার জন্য লাভজনক হয়।

 

১১. চেকলিস্ট ( checklist)- একটি পণ্য বা সেবার  উন্নয়ন
নিম্নোক্ত চেকলিস্ট (checklist) আপনাকে নতুন পণ্য বা সেবা তৈরির বিবেচ্য বিষয় বুঝতে সাহায্য করবেঃ

  • আপনার উন্নয়নের পরিকল্পনা সম্পর্কে আপনার দলের সদস্যদের সাথে পরামর্শ করেছেন?  তাদের কাছে হয়ত দরকারী  তথ্য থাকতে পারে ।
  • আপনি সরবরাহকারী, গ্রাহক এবং অন্যান্য ব্যবসায়িক সহযোগীদের সাথে কথা বলছেন? তাদের বিশেষ অভিজ্ঞতা কাজে লাগতে পারে
  • আপনি আপনার সম্ভাব্য বাজার এবং প্রতিযোগিতা সম্পর্কে চিন্তা করেছেন?
  • আপনি কীভাবে আপনার পণ্য বা সেবার মূল্য এবং খরচের উৎস সম্পর্কে চিন্তা করেছেন?
  • আপনার কি নতুন পণ্য উন্নয়নের ধাপগুলো বিবেচনা করেছেন এবং খরচ নিয়ন্ত্রনের জন্য কী করছেন? আপনার মানদণ্ড পূরণ করেনা এমন আইডিয়ার পেছনে অনেক সময় এবং সম্পদ ব্যয় করার আগেই কাজ বন্ধ করে দিন ।
  • আপনি কি আপনার পণ্য উন্নয়নের দলে কাদের  প্রয়োজন এবং কীভাবে একসঙ্গে কাজ করবে তা বিবেচনা করেছেন ?
  • দলটি কে পরিচালনা করবে তা বিবেচনা করেছেন?
  • আপনি কি কোনও প্রবিধান (পরিবেশগত প্রবিধান সহ) বিবেচনা করেছেন যা আপনার নতুন পণ্য বা সেবাকে প্রভাবিত করবে?
  • আপনি নতুন পণ্য বা সেবার সম্ভাব্য ভবিষ্যৎ অবস্থা চিন্তা করেছেন?